দিদারুল ইসলাম কাজল/সালাহ উদ্দিন সালাম:

গত বৃহস্পতিবার  ১১ টার ঈদগাহ সদরে ডিসি সড়কের বিমান মৌলবির মার্কেট থেকে পাসপোর্ট বানাতে এসে আটক করা হয় ছয় জন রোহিঙ্গা তরনী ও এক দালালকে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাহসী গোয়েন্দা অফিসার সাব ইন্সপেক্টর মামুন এর নেতৃত্বে ও সাংবাদিক দিদারুল ইসলাম কাজল এবং সালাহ উদ্দিন সালাম সহ কক্সবাজার কলাতলীর হোটেল মটেলে খোঁজ নেয়ার পরে খুরুষ্কুল চৌফলন্ডী হয়ে ঈদগাহ সদরের বিমান মলই নামক স্থানে আটক করা হয়। পরে ঈদগাহ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস আই সঞ্জিতের হাতে সোপর্দ করেন। তদন্ত কেন্দ্রের নিয়ে রোহিঙ্গা তরুনীদের জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যায় মালেশিয়ায় অবস্থান করা রোহিঙ্গা আব্দুল খালেদ পাসপোর্ট বানানোর জন্য দালালের মাধ্যমে কক্সবাজারে আসেন। তাদের সাথে আরো ৮/১০ জন পুরুষ ও মহিলা পলাতক রয়েছে বলে জানা যায় এবং তাদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আটককৃতরা হলেন,
দালাল:
মো: শহিদ উল্লাহ
পিতা: মোজাফফর আহমদ
ঠিকানাঃ ৯ নাম্বার ওয়ার্ড, পালাকাটা।

আটক রোহিঙ্গা নারী:
১. নূর কায়েস,পিতা: সৈয়দ হোসেন,
কুতুপালং, ব্লক A1,
২. দিল কায়াস, পিতা: নজির আহমেদ
বালুখালী,
৩. নূর নাহার, পিতা: মোঃ হোসেন,
কুতুপালং
৪. ফরমিন, পিতা: মোঃ হোসেন
কুতুপালং।
৫. মোকারমা, পিতা: মৌ: শফিউল্লাহ
বালুখালি
৬. মাইমুন,পিতা: আমান উল্লাহ
বালুখালী।
আটকের পর এস আই সঞ্জিত জানান, আটক রোহিঙ্গা তরুনী ও দালালকে আরো জিজ্ঞাসাবাদের পর পাসপোর্ট বানানো ও মালেশিয়া গমনের সাথে যারা জড়িত ও পলাতক তাদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।

দালাল সহ ৬ রোহিঙ্গা তরুনী আটক