আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পর থেকেই বিক্ষোভে ফেটে পড়েছে পুরো কাশ্মীর। আর এই বিক্ষোভকারীদের অনেকেকেই গ্রেফতার করে তুলে নিয়ে গিয়েছিল ভারতীয় বাহিনী। তাদের অনেকেরই কোন খোঁজ মেলেনি। স্থানীয়দের আশঙ্কা তাদের নিয়ে গুম করে দেয়া হয়েছে।

সেই আশঙ্কা অনেকটা সত্যিই মনে হচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল পিপলস ট্রাইব্যুনাল অন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড জাস্টিস নামের মানবাধিকার সংস্থার একটি প্রতিবেদনে। তাদের দাবি তারা ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে ২৭০০ গণকবরের খোঁজ পেয়েছে।

শ্রীনগরের একটি সংবাদ সম্মেলনে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে সংস্থাটি। এতে গণকবরে কমপক্ষে ২৯০০ লাশ রয়েছে দাবি করে এর স্বাধীন তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবার) ভারতের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু এ খবর প্রকাশ করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, দুই হাজার ৭০০ অজ্ঞাত, অশনাক্ত গণকবরে দুই হাজার ৯০০ মরদেহ রয়েছে। উত্তর কাশ্মীরের বান্দিপোরা, বারামুল্লা ও খোপওয়ারা জেলার ৫৫টি গ্রামে এসব কবর রয়েছে।

সংস্থাটির দাবি, ৮৭ দশমিক ৯ শতাংশ মরদেহ নামহীন। তারা এ ক্ষেত্রে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন ও রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের হস্তক্ষেপ দাবি করেছে।

কাশ্মীরে ২৭০০ গণকবরের সন্ধান